শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:১৭
আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:১৬

নিজ হাতে গড়া ক্রিকেটারের বিশ্বজয়ে গর্বিত দিনাজপুর বিকেএসপি

বিকেএসপিতে এসে আবেগাপ্লুত আকবর আলী

দিনাজপুর প্রতিনিধি

বিকেএসপিতে এসে আবেগাপ্লুত আকবর আলী
আকবর আলী

বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনের ইতিহাসে প্রথমবারের মত বিশ্বজয় করেছে বাংলাদেশ। অনূর্ধ্ব ১৯ দলের অবিস্মরণীয় বিশ্বকাপ জয় ছুঁয়ে গেছে দিনাজপুর বিকেএসপিতেও। এই আনন্দ উদযাপনে শামিল হন কোচ ও শিক্ষার্থীরা। বিশ্বকাপজয়ী অনূর্ধ্ব ১৯ দলের অধিনায়ক আকবরসহ সাত সদস্য এখানকার শিক্ষার্থী হওয়ায় আনন্দ পেয়েছে দ্বিগুণ মাত্রা। ইতিহাস গড়া ক্রিকেটারদের নিয়ে গর্বিত এখানকার সবাই।

শনিবার বিকালে সাবেক প্রশিক্ষকদের কৃতজ্ঞতা জানাতে, দিনাজপুর বিকেএসপিতে আসেন যুব বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক আকবর আলী। আজকের বিশ্বজয়ী আকবর হয়ে ওঠার পেছনে বড় ভূমিকা এই প্রতিষ্ঠানের। বিশ্বকাপ জয়ের সম্মান পেয়ে গর্বিত তার শিক্ষক ও কোচরা। প্রশিক্ষকদের কৃতজ্ঞতা জানাতে আসা আকবরকে কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে যান তার পুরনো কোচ ও শিক্ষকরা। দীর্ঘদিন পর পুরনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরে আকবরও হয়ে পড়েন আবেগপ্রবণ। শুধু শিক্ষক না, বর্তমান শিক্ষার্থীদের সঙ্গেও সময় কাটান আকবর। বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক শিক্ষার্থী ও বড় ভাইকে কাছ থেকে দেখে সবাই হয়েছেন অনুপ্রাণিত। আকবরও তাদের দিয়েছেন খেলা নিয়ে নানা পরামর্শ।

বিকেএসপি'র দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ক্রিকেটার হিসেবে বেড়ে ওঠে যুব বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক আকবর আলীর। বিশ্বকাপ জয়ের পর যেখানেই যাচ্ছেন, পাচ্ছেন রাজকীয় সংবর্ধনা। মানুষ দিচ্ছেন শর্তহীন ভালোবাসা। তবে যেখান থেকে উঠে আসা, এবার আকবর ছুটে গেলেন সেখানে। তাই শনিবার বিকেলে আকবর হাজির হন স্মৃতিবিজড়িত দিনাজপুর বিকেএসপি'তে।

দিনাজপুরের বিকেএসপির আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রেই বেড়ে ওঠা অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের অধিনায়ক আকবর আলীর। শুধু আকবর নন, পারভেজ হাসান ইমন, হাসান মুরাদসহ একই দলের বেশ ক’জন সতীর্থের ক্রিকেটের হাতেখড়ি এখানে। আকবর ২০১২ সালে স্কুলপর্যায়ে জেলার কয়েকজন ক্রিকেট কোচের হাতে প্রশিক্ষণ নেন। ২০১৫-১৬ সাল পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের এই পাঠশালায় নিজেদের প্রস্তুত করেন আকবররা। এরপরে দিনাজপুর থেকে সাভার বিকেএসপিতে প্রশিক্ষণ শুরু করে যুবারা। এরপরের গল্পটা শুধুই উত্থানের। সেই যুবারা এখন ইতিহাস। 

স্মৃতিবিজরিত বিকেএসপি দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষন কেন্দ্র এসে আকবর জানালেন, এখন বুঝতে পারছি দেশের মানুষের জন্য বিশ্বকাপটা কি? দক্ষিন আফ্রিকার যাত্রাটা মোটেও সহজ ছিল না। বিশেষ করে ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে স্নায়ুচাপের কঠিন পরীক্ষা দিতে হয়েছে। তবে আত্মবিশ্বাসের জায়গাটায় কোনো খাদ ছিল না ইয়াংটাইগারদের, বিশ্বাস ছিল অটুট। পুরো আসরে দলগত পারফরম্যান্স ছিল মূল চালিকা শক্তি। তাই দীর্ঘদিনের সোনার হরিণ ধরা দিয়েছে হাতের মুঠোয়। 

বিকেএসপির কোচ ইরফানুজ জামান সোহাগ ও কোচ আকতার ইমাম সোহেল আনোয়ার জানালেন নিজের হাতে গড়া এসব ক্রিকেটারের বিশ্বজয়ে গর্বিত, এ আনন্দের ভাগিদার আমরাও।  

উপ-পরিচালক আখিনুর রহমান রুশো জানান, দিনাজপুর বিকেএসপি থেকে প্রশিক্ষণ নেয়া সফল এই ক্রিকেটারদের সাফল্যে আমরাও আনন্দিত। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে এখানে ক্রিকেটে ১২৭ ও সাঁতারে ২৩ জন ছাত্র প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।

এক আকবর অনুপ্রাণিত করবে সবাইকে। ভবিষ্যতেও এই বিকেএসপি থেকে উঠে আসবে বিশ্বমাতানো ক্রিকেটার, এমনই প্রত্যাশা।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য