শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১০

আদালতে মামলার স্তূপ

সমস্যার সমাধানে চাই সমন্বিত উদ্যোগ

আদালতে মামলার স্তূপ

দেশের আদালতগুলোতে বিচারাধীন মামলার স্তূপ যেন নিয়তির লিখন হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিলম্বিত বিচার বিচারহীনতার নামান্তর— এ সত্যটি জানা থাকা সত্ত্বেও বছরের পর বছর ধরে সেদিকে নজর না দেওয়ায় এই অকাম্য অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমান প্রধান বিচারপতি দায়িত্ব গ্রহণের পর ‘বিচারহীনতার’ সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেন এবং দেশের আদালতগুলোতে যাতে দ্রুত বিচার সম্পন্ন হয় সে ব্যাপারে ব্যক্তিগত তদারকিও জোরদার করেন। তার এই মহৎ উদ্যোগে মামলা নিষ্পত্তিতে গতি সৃষ্টি হলেও আগে থেকে জমে থাকা স্তূপ খুব একটা কমানো সম্ভব হয়নি। মামলার তুলনায় বিচারকের সংখ্যা কম থাকায় এবং মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে আইনজীবীদের একাংশের অনীহা থাকায় মামলার স্তূপ সরানো সত্যিকার অর্থেই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশে এ মুহূর্তে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩১ লাখ ১০ হাজারের কাছাকাছি। ১৭ জুলাই জাতীয় সংসদে আইনমন্ত্রী প্রশ্নোত্তরকালে বলেছেন চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ছিল ৩১ লাখ ৯ হাজার ৯৬৭টি। যার মধ্যে আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১২ হাজার ৭৯২ এবং হাইকোর্ট বিভাগে ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩০৩টি। এ ছাড়া জেলা পর্যায়ে সহকারী জজ আদালত হতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সব প্রকার ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৮ লাখ ৯ হাজার ৪৬১টি এবং জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতসমূহে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৪১১টি। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্যে উল্লেখ করা হয়, সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে প্রধান বিচারপতিসহ মোট নয়জন বিচারপতি এবং হাইকোর্ট বিভাগে ৯১ জন বিচারপতি কর্মরত রয়েছেন। দেশের নিম্ন আদালতের বিভিন্ন পর্যায়ে ২৮১ জন বিচারকের পদ শূন্য রয়েছে। মামলাজট কমাতে বিচারক নিয়োগ, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মামলা নিষ্পত্তি, প্রতিটি জেলায় কেস ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন, ডিজিটাল কজলিস্ট চালু, আর্থিক অসচ্ছল ব্যক্তিদের সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদানসহ নানাবিধ কার্যক্রম চালু করার কথাও জানিয়েছেন মন্ত্রী। দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় দ্রুত বিচার সম্পন্ন করার বিষয়টি প্রাসঙ্গিকতার দাবিদার। এ ব্যাপারে রাষ্ট্রের সব স্তম্ভকে একযোগে কাজ করতে হবে। বিচার বিভাগে গতি সৃষ্টির জন্য সরকারকে সব ক্ষেত্রে মদদ জোগাতে হবে। আদালতের বাইরে মামলা নিষ্পত্তি করে বিচারপ্রার্থী মানুষকে ভোগান্তির হাত থেকে রক্ষায় নিতে হবে উদ্যোগ।


আপনার মন্তব্য